• বৃহস্পতিবার ২৯শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে বহিরাগতের হাতে কর্তব্যরত নার্স আহত

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ০১ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৯:৩৫ অপরাহ্ণ

    মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে বহিরাগতের হাতে কর্তব্যরত নার্স আহত

    মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালের এক সহকর্মীর ছেলের হাতে কর্তব্যরত নার্স শাহিনুর রহমান আহত হওয়ার ঘটনায় আতংক বিরাজ করছে নার্সদের মধ্যে। অভিযুক্ত সহকারী নার্স মোতালেব হোসেনের শাস্তির দাবিতে কর্মবিরতি পালনসহ বিক্ষোভ করেছে নার্সরা। এব্যাপারের মোতালেব হোসেন তার ছেলে তন্ময়সহ অজ্ঞাত নামা ১০/১২ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন নার্স শাহিনুর রহমান।

     

    আহত কর্তব্যরত নার্স শাহিনুর রহমান জানান, মঙ্গলবার বেলা ১২ টার দিকে হাসপাতালের অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে তত্ববধায়কের অফিস কক্ষে সহকারী নার্স মোতালেব হোসেনের সাথে তার কথা কাটাকাটি হয়। তার কিছুক্ষণ পর মোতালেব হোসেনের ছেলে তন্ময়সহ ২০ থেকে ২৫ জন বহিরাগতরা হাসপাতালে এসে তার উপর হামলা চালায়। এক পর্যায়ে তাকে মারতে মারতে শিশু ওয়ার্ডের সামনে নিয়ে আসে। তাকে বাঁচাতে গিয়ে হাসপাতালের ট্রলি বহনকারী দুই নারী আহত হয়েছেন। পরে হাসপাতালের লোকজন এগিয়ে আসলে বহিরাগতরা পালিয়ে যায়। এই ঘটনায় তিনি বাদি হয়ে মানিকগঞ্জ সদর থানায় মামলা করেছেন।

     

    হাসপাতালের নার্সিং সুপারভাইজার মো.আনিছুর রহমান জানান, অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে সহকারী নার্স মোতালেব হোসেনের ছেলে তন্ময়সহ বহিরাগতরা কর্তব্যরত নার্স শাহিনুর রহমানকে মারধর করেন। হাসপাতালের ভিতরে একজন কর্তব্যরত নার্সের উপর হামলা কোন ভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। শাহিনুর রহমানের উপর হামলার প্রতিবাদে তাৎক্ষণিক সকল নার্স কর্মবিরতি পালন করেন ও মোতালেব হোসের শাস্তির দাবিতে তত্বাবধায়কের অফিস রুমের সামনে বিক্ষোভ করেন। পরে পুলিশ প্রশাসনের আশ্বাসে কর্মবিরতি প্রত্যাহার করা হয়।

     

    এদিকে নার্সদের দাবি মোতালেব হোসেন ২৮ বছর ধরে মানিকগঞ্জ হাসপাতালে কর্মরত রয়েছেন। তিনি বিগত সময় ভিন্ন রাজনীতি করলেও বর্তমানে আওয়ামী লীগের এক নেতার আর্শ্বিাদ নিয়ে হাসপাতালে কর্তৃত্ব করে চলছেন। তার বিরুদ্ধে হাসপাতালে ভর্তি রোগীসহ অন্য রোগীদের বিভিন্ন ক্লিনিকে কমিশনের বিনিময়ে পাঠানোর অভিযোগ আছে। তার ছেলে তন্ময় একজন ক্যাডার । মোতালেব হোসেন তার ছেলেকে দিয়ে সকলকে ভয়ভীতি দেখান।

     

    সহকারী নার্স মোতালেব হোসেন জানান, নার্স শাহিনুর রহমানের সাথে তার কথা কাকাটি হয়েছে ঠিকই। কিন্তু তিনি নার্স শাহিনুরকে মারধর করতে তার ছেলেকে জানায়নি। ছেলে হয়তো কোথাও থেকে শুনে হাসপাতালে এসেছিলো।

     

    এ বিষয়ে হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ আরশ্বাদ উল্লাহ জানান, একজন সহকর্মী তার ছেলেকে দিয়ে হাসপাতালের ভিতরে কর্তব্যরত আরেক নার্সকে মারধরের ঘটনা অত্যান্ত দুঃখজনক। মোতালেব হোসেনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে।

     

    মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকবর আলী খান জানান, মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা হাসপাতালের নার্স শাহিনুর রহমানকে মারধরের ঘটনায় মোতালেব হোসেন তার ছেলে তন্ময়সহ অজ্ঞাত ১০/১২ জনের নামে একটি মামলা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

    আপনার মতামত দিন

    বাংলাদেশ সময়: ৯:৩৫ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০১ সেপ্টেম্বর ২০২০

    advertisement

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    advertisement
    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
    advertisement