মঙ্গলবার | ২৮শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দৈনিক পাবলিক বাংলা বিশ্বজুড়ে বাঙলার মুখপত্র
বিশ্বজুড়ে বাঙলার মুখপত্র

আগুন নেভাতে যাওয়ার আগে মাকে ফোন করে দোয়া চেয়েছিলেন খুলনা শাকিল

গোলাম মোস্তফা খাঁন , দাকোপ :

আগুন নেভাতে যাওয়ার আগে মাকে ফোন করে দোয়া চেয়েছিলেন খুলনা শাকিল

গোলাম মোস্তফা খান, দা কোপ থেকে : কনটেইনার ডিপোতে আগুন নেভাতে যাওয়ার আগে মায়ের কাছে ফোন করে দোয়া চেয়েছিলেন ফায়ারম্যান শাকিল তরফদার। এটাই ছিল পরিবারের সঙ্গে তার শেষ কথা। ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে নিহত হয়েছেন তিনি।
শাকিল তরফদার ছিলেন সীতাকুণ্ডের কুমিরা ফায়ার সার্ভিসের ফায়ারম্যান। খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার সুখদাড়া গ্রামের সাত্তার তরফদার ও জেসমিন বেগম দম্পতির ছেলে শাকিল তিন ভাইয়ের মধ্যে ছোট।
শাকিলের মৃত্যুর খবর শোনার পর থেকে বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন মা। বাবা স্বাভাবিক থাকলেও কথা বলছেন না। মৃত্যুর কথা নিশ্চিত হওয়ার পর শাকিলের বড় ভাই মনি তরফদার স্থানীয় কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে চট্টগ্রামে গেছেন। এখনও ভাইয়ের লাশ বুঝে পাননি মনি।
শাকিলের মা জেসমিন বেগম জানিয়েছেন, আগুন নেভাতে যাওয়ার আগে শাকিল তার মাকে ফোন করেছিলেন। এ সময় মায়ের কাছে দোয়া চেয়েছিলেন। আগামী কোরবানির ঈদে বাড়ি এসে খুলনা জোনের মনিরামপুর ফায়ার সার্ভিসের অফিসে যোগদানের কথা বলেছিলেন মাকে। রোজার ঈদে শাকিল সুখদারার বাড়িতে পরিবারের সঙ্গে ঈদ করেছিলেন। তার মৃত্যু কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছেন না মা।
পরিবারের বরাত দিয়ে সুখদারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জাকির হোসেন বলেন, শাকিল ২০১৯ সালের ২০ জানুয়ারি ফায়ার সার্ভিসে যোগ দেন। শুরু থেকেই শাকিল সীতাকুণ্ডের কুমিরা অফিসে দায়িত্ব পালন করছেন। চাকরির প্রথমবার শাকিলের মনিরামপুরে বদলি হওয়ার কথা ছিল। কোরবানির ঈদের পর সেখানে যোগদানের কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই শাকিল পৃথিবী থেকে বিদায় নিলেন। তার মৃত্যুতে পরিবার ও প্রতিবেশীদের মাঝে শোকের ছায়া নেমেছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করতে গিয়ে ফায়ার সার্ভিসের ১২ সদস্য প্রাণ হারিয়েছেন। রবিবার (৫ জুন) রাতে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ডিপোতে বিস্ফোরণে এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৯। এর মধ্যে ফায়ার সার্ভিসের ১২ কর্মী রয়েছেন।
চট্টগ্রাম বিভাগীয় ফায়ার সার্ভিসের উপপরিচালক আনিসুর রহমানও একই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ফায়ার সার্ভিসের ১২ জন কর্মী আগুন নেভাতে গিয়ে মারা গেছেন। এর মধ্যে এখন পর্যন্ত ৯ জনের মরদেহ শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে। তাদের মধ্যে শাকিলও রয়েছেন। এছাড়া আমাদের ১৫ কর্মী সিএমএইচে চিকিৎসা নিচ্ছেন।
৭/৬/২০২২

আপনার মতামত দিন

Posted ৭:৫২ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০৭ জুন ২০২২

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
ড. সৈয়দ রনো   উপদেষ্টা সম্পাদক   
শাহ্ বোরহান মেহেদী, সম্পাদক ও প্রকাশক
,
ঢাক অফিস :

২২, ইন্দারা রোড (তৃতীয় তলা), ফার্মগেট, তেজগাও, ঢাকা-১২১৫।

নরসিংদী অফিস : পাইকসা মেহেদী ভিলা, ঘোড়াশাল, নরসিংদী। ফোনঃ +8801865610720

ই-মেইল: news@doinikpublicbangla.com