শনিবার | ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

দৈনিক পাবলিক বাংলা বিশ্বজুড়ে বাঙলার মুখপত্র
বিশ্বজুড়ে বাঙলার মুখপত্র

কন্ঠশিল্পী ফকির আলমগীরের মৃত্যুতে শেখ ছখিনা খয়বার শিল্পী গোষ্ঠী”র শোক প্রকাশ

মোঃ শেখ শহীদুল্লাহ্ আল আজাদ. স্টাফ রিপোর্টারঃ

কন্ঠশিল্পী ফকির আলমগীরের মৃত্যুতে শেখ ছখিনা খয়বার শিল্পী গোষ্ঠী”র শোক প্রকাশ

বীর মুক্তিযোদ্ধা জনপ্রিয় গণসংগীতশিল্পী সহ বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশন জগতের উজ্জ্বল নক্ষত্র স্বাধীনতা সপক্ষের অন্যতম গুনি মানুষ জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী ফকির আলমগীর। তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়ে শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তাঁর মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন ছেলে মাশুক আলমগীর রাজীব। মৃত্যুকালে ফকির আলমগীরের বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। তিনি স্ত্রী, তিন ছেলে রেখে গেছেন। ফকির আলমগীরের ছেলে মাশুক আলমগীর রাজীব জানান, শুক্রবার রাত ১০টার দিকে কোভিড ইউনিটে ভেন্টিলেশনে থাকা অবস্থায় ফকির আলমগীরের হার্ট অ্যাটাক হয়। রাত ১০টা ৫৬ মিনিটে ইউনাইটেড হাসপাতালের কোভিড আইসিইউ ইউনিটের ইনচার্য ডাক্তার আমিনা সুলতানা ফকির আলমগীরের মৃত্যু ঘোষণা করা হয়। কয়েক দিন ধরে ফকির আলমগীর জ্বর ও খুসখুসে কাশিতে ভুগছিলেন। পরে তিনি চিকিৎসকের শরণাপন্ন হন। চিকিৎসকের পরামর্শমতো কোভিড-১৯ পরীক্ষা করিয়ে জানতে পারেন, তিনি করোনা পজিটিভ। সেদিনই তাঁর শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। এরপর তাঁকে গ্রিন রোডের একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়। ওই সময় নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের (আইসিইউ) প্রয়োজন পড়লে সেখান থেকে তাঁকে গুলশানের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাঁর ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা ছিল। যে কারণে জটিলতা বাড়তে থাকে। হাসপাতালে ভর্তির পর দুই ব্যাগ প্লাজমা দেওয়া হয়েছে। কিছুটা ভালোও হয়। কিন্তু তাঁর ছেলে মাশুক আলমগীর জানান, রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে তাঁর বাবার অক্সিজেন স্যাচুরেশন ৪৫-এ নেমে আসে, যার কারণে চিকিৎসকেরা তাঁকে ভেন্টিলেশনে নেওয়ার পরামর্শ দেন।ভেন্টিলেশনে নেওয়ার পর থেকে ফকির আলমগীরের অক্সিজেন স্যাচুরেশন ৯০-এ উন্নীত হয়। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। এক সময় রক্তে ও ফুসফুসে ইনফেকশন পাওয়া যায়। রক্তচাপ খুবই নেমে যায়। রক্তে ইনফেকশনের জন্য প্রায় প্রতিদিনই সকালে জ্বর আসছে। শুক্রবার নতুন অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে রাতে আবারও অবস্থার অবনতি হয়, শেষ পর্যন্ত করোনার কাছে হেরে যান গণসংগীতের এই কিংবদন্তিতুল্য শিল্পী। এ দিকে তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। খুলনা জেলার রূপসা উপজেলায় ২০১৮ সাল থেকে অবস্থিত বাংলাদেশ বেতার খুলনার অন্যতম সাংস্কৃতিক সংগঠন” শেখ ছখিনা খয়বার শিল্পী গোষ্ঠী বেতার খুলনা সংঘ. জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী ফকির আলমগীরের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন, শেখ ছখিনা খয়বার শিল্পী গোষ্ঠী বেতার খুলনা শ্রোতা সংঘের উপদেষ্টা” সাহিত্য সাংসদ খুলনা ও মেঘদূত চক্রের সভাপতি” কবি সাইফুল ইসলাম মল্লিক” উপদেষ্টা” বাংলাদেশ বেতার খুলনার জনপ্রিয় উপস্থাপক কিশোর বাড়ই” ইফফাত সানিয়া ন্যান্সি” সভাপতি” শেখ শহীদুল্লাহ্ আল আজাদ. সম্পাদক মোঃ ওমর ফারুক রাসেল. এস,এম আসাদুজ্জামান, এ্যাডভোকেটঃ মোস্তাফিজুর রহমান মোশতাক” মোঃ ইশারাত” মোঃ নুসাইব” মাহাদি হাসান রিয়াদ প্রমুখ।

আপনার মতামত দিন

Posted ৫:১৪ অপরাহ্ণ | শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
ড. সৈয়দ রনো   উপদেষ্টা সম্পাদক   
শাহ্ বোরহান মেহেদী, সম্পাদক ও প্রকাশক
,
ঢাক অফিস :

২২, ইন্দারা রোড (তৃতীয় তলা), ফার্মগেট, তেজগাও, ঢাকা-১২১৫।

নরসিংদী অফিস : পাইকসা মেহেদী ভিলা, ঘোড়াশাল, নরসিংদী। ফোনঃ +8801865610720

ই-মেইল: news@doinikpublicbangla.com