মঙ্গলবার | ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দৈনিক পাবলিক বাংলা বিশ্বজুড়ে বাঙলার মুখপত্র
বিশ্বজুড়ে বাঙলার মুখপত্র

দুর্গাপূজায় রূপের যত্নে বাড়তি করনীয়!

মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জল :

দুর্গাপূজায় রূপের যত্নে বাড়তি করনীয়!

মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জল : ঋতু পরিবর্তনশীল। একেকটি ঋতুর একেকটি বৈচিত্র। ঠিক তেমনি ঋতু পরিবর্তনের সাথে খাপ খাওয়ানোর জন্য বিভিন্ন ঋতুর ধরণ অনুযায়ী ত্বকের যত্ন প্রয়োজন। আমরা সাধারণত ত্বকের যত্ন বলতে বুঝি শুধু গ্রীষ্মকালীন ও শীতকালীন। এখন চলছে শরৎকাল। একে বলা হয় ট্রানজিশনাল সিজন। খানিকটা বলতে পারেন আসন্ন শীতের জন্য প্রস্তুতি। গ্রীষ্মের তাপদাহ, বৃষ্টিভেজা বর্ষার পর এ সময়ের আবহাওয়া বেশ স্বাচ্ছন্দ্যপূর্ণ। আপনি কি জানেন, ত্বক কিন্তু কিছুটা আর্দ্রতা এখনি হারাতে শুরু করেছে। যাদের ত্বক শুষ্ক, তাদের ক্ষেত্রে তো কোনো সন্দেহের অবকাশ নেই আর্দ্রতা হারানোর। তৈলাক্ত এবং সাধারণ ত্বকের জন্যও দরকার ময়েশ্চার এবং হাইড্রেশন লক।

শারদীয় দূর্গা পূজা সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব। এই উৎসব ছোট বড়, ছেলে – মেয়ে সকলের। এখন ছেলেরাও অনেক সচেতন তাদের ত্বকের যত্ন নিয়ে। ছেলেরা ত্বকের যত্ন নেবার ক্ষেত্রে যে ভুলগুলো করে থাকে তা হলো – ক্লিনজিং বলতে তারা পুরো শরীরে একটিমাত্র ক্লিনজার ব্যবহার করাকেই বোঝে। কিন্তু মুখের ও শরীরের ক্লিনজার হয় আলাদা। এছাড়া সানস্ক্রিন ব্যবহার না করার কারণে সানট্যান, সানড্যামেজ, এইজ স্পট, ওয়ার্ট এই ধরণের সমস্যাগুলো দেখা দেয়। তাই তাদের ক্ষেত্রে যে কোনো প্রোডাক্ট নির্বাচন করার ব্যাপারে তার লেবেল এবং উপাদানগুলো দেখতে হবে। শেভিং টেকনিক খেয়াল করতে হবে। কেননা সঠিক নিয়মে শেভ না করার কারণে রেজার বাম্পস, রেজার র‍্যাশ, ইনগ্রৌন হেয়ার হয়ে থাকে। ফেস ক্লিন করে ত্বক ও হেয়ার আর্দ্র রাখতে হবে। এরপর ডিরেকশন অনুযায়ী শেভ করতে হবে। স্কিনকে স্ট্রেচ করা যাবে না।

পূজোর প্রস্তুতিতে অনেকটা সময় কেটে যায়। তাই মহিলারা তেমন একটা সময় পান না ত্বকের যত্ন নেবার। কেনাকাটা করতে গেলে সানট্যান, সানড্যামেজ হয়। যদিও সানট্যান সাধারণত ৪ থেকে ১২ সপ্তাহ থাকে। আবার রান্নার প্রস্তুতিতে কুকিং রে এর সংস্পর্শে এসে ভাটা পরতে পারে উজ্জ্বলতার। দেখা দিতে পারে ত্বকে নানা ধরণের সমস্যা। সাধারণত সারাদিনের ব্যস্ততার জন্য নতুন প্রোডাক্টগুলো রাতে ট্রাই করে। এই ভুলটি কখনোই করবেন না। শুরুতে প্যাচ টেস্ট করে নিবেন এবং সেটা অবশ্যই দিনের বেলা।
ম্যাচিউর স্কিনের জন্য খুব ভাল একটি উপাদান যেটি প্রোডাক্ট ও খাদ্য তালিকায় রাখা যায় সেটি হলো পেপটাইড (শর্ট চেইন অ্যামাইনো এসিড)।

প্রথমে আসি টপিক্যাল বা স্কিনের ব্যবহার প্রসঙ্গে। প্ল্যান্ট প্রোটিন বেইজড পেপটাইড সেরাম, সাধারণত চিয়া সিড, গাজর, গার্ডেন পি আরো অনেক ধরণের বোটানিক্যাল এক্সট্রাক্ট থেকে তৈরি যা কোলাজেন বুস্ট করে, এজিংয়ের এনজাইমগুলোকে স্লো করে, স্কিনের ড্যামেজ রিপেয়ার করে স্কিনকে একটা ইয়ুথফুল টেক্সচার দেয়। প্ল্যাট প্রোটিন সেরাম গুলো হচ্ছে টক্সিন ফ্রি, গ্লুটেন ফ্রি এবং ইকো ফ্রেন্ডলি। পেপটাইড যেহেতু প্রোটিনের ক্ষুদ্রতম কণা সেহেতু এটি সহজেই শরীরে শোষিত হতে পারে। পেপটাইড সমৃদ্ধ খাবার গুলো হচ্ছে ডিম, দুধ, মাছ, মটরশুঁটি, ছোলা ইত্যাদি।

মডেল : ডা: তাওহীদা রহমান ইরিন

আপনার মতামত দিন

Posted ৪:৫৪ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ২০ অক্টোবর ২০২৩

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

ড. সৈয়দ রনো   উপদেষ্টা সম্পাদক   
শাহ্ বোরহান মেহেদী, সম্পাদক ও প্রকাশক
গোলাম রব্বানী   নির্বাহী সম্পাদক   
,
ঢাক অফিস :

২২, ইন্দারা রোড (তৃতীয় তলা), ফার্মগেট, তেজগাও, ঢাকা-১২১৫।

নরসিংদী অফিস : পাইকসা মেহেদী ভিলা, ঘোড়াশাল, নরসিংদী। ফোনঃ +8801865610720

ই-মেইল: news@doinikpublicbangla.com