শুক্রবার | ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দৈনিক পাবলিক বাংলা বিশ্বজুড়ে বাঙলার মুখপত্র
বিশ্বজুড়ে বাঙলার মুখপত্র

নাটকঃ- হে বন্ধু বিদায়

মুন্নি আক্তার, স্টাফ রিপোর্টার :

নাটকঃ- হে বন্ধু বিদায়

নাটকঃ- হে বন্ধু বিদায়।
কলমেঃ- সজল কুমার নাথ।

পর্ব শুরুঃ-
ষ্টেশনে থামলো ট্রেন , কেউ উঠছে কেউ বা নামছে, সবাই নিজের মতো করে সিটে গিয়ে বসলো, কেউ কারো সাথে কথা বলছে না, পাশের সিটে বসা যাত্রী কে দেখেও দেখে না, হটাৎ চোখ পড়লো পাশে বসা সিটে যাত্রী দিকে, চেনা চেনা মুখ কেমন জানি মনে হয়, মনে মনে ভাবলো আবার একটু দেখি, চেনা মানুষ টা বুঝি আজ দেখা হয়ে গেলো এই ট্রেনে,

“চোখের দিকে তাকিয়ে বললো”

সঃ-আমাকে নামতে হবে পরের স্টেশনে,তুমি নামবে কোন স্টেশনে,
অঃ-এইটুকু কি প্রশ্ন,এতো দিন পরে।

সঃ–হ্যা এইটুকুই,
অঃ-কতো কথা যে জমাট বেঁধে আছে মনের গহিন বনে তা বলিবো আজি কেমনে, এইটুকুই?

স;-মন বলছে বলতে, কিন্তু মুখ বলছে নিরব থাকতে,
অ;-মুখ থেমে গেছে তাহার কারণ কি।

স;-যদি ভুল কিছু বলা হয়ে যায় হটাৎ করে ।
অ;-শুধরিয়ে নিবো নিজেদের মধ্যে।

স;-রবীন্দ্র নাথ ঠাকুরের শেষের কবিতা বইটি পড়েছিলে।
অ;-সেই তো কবেই হয়েছে।

স;-শেষের কবিতার শেষ অক্ষর কি তোমার মনে আছে।
অ;-হ্যা মনে আছে।

স;-শেষ শব্দ কি।
অ;-বাহিরে দেখো,আলো আছে আগের মতো,

সঃ-আগের মতো যে হাসি।
অঃ-থাকবেনা কেন।

স;-আঁখিদুটি খুলে দেখি হাসি নেই আগের মতো।
অ;-সেই তো নিরবে নিভে গেছে সেই কবেই ,

সঃ–আমাদের গেছে যে দিন
একেবারে কি গেছে
কিছুই কি নেই বাকি।
অঃ-সেই দিন নিয়মের গতিতে গেছে চলে,ফাগুনের শুকনো পাতা ঝরে গেছে সব নিরবে।

সঃ–দেখা হবেনা বুঝি এতেই কি শেষ।
অঃ-সামনের স্টেশনে নামতে হবে যে আমাকে।

সঃ-সামনের স্টেশন কি চলে এসেছে।
অঃ-গাড়ির গতি ধীরে ধীরে কমে গেছে।

সঃ-কখন আবার হবে দেখা
কখন আসবে বৈশাখ
ঝরে যাওয়া পাতা নতুন করে গজাবে।
অঃ-মনে হয় এই কালে আর ঝরে যাওয়া পাতা গজাবে না।

সঃ-এই কাল কি শেষ।
অঃ-নামতে হবে।

সঃ-শেষ কথা হয়নি বলা।
অ;-আর হবেনা বলা।

সঃ-শেষের কবিতার শেষ অক্ষর টুকু বলে যাও।
অঃ-ভুলে গেছে সব মন থেকে।

সঃ-সত্যি কি ভুলে গেছে।
অঃ-মোর লাগি করিও না শোক, আমার রয়েছে কর্ম,আমার রয়েছে বিশ্বলোক,মোর পাত্র রিক্ত হয়নাই, শুন্যরে করিবো পূর্ণ এই ব্রত বহিব সদাই।

সঃ-আমার হয়নি বিশ্বলোক, শুন্যেতে আছি সর্বদাই, আমার হৃদয় বয়ে চলে সদাই।
অঃ-গাড়ি থেকে গেছে,নামলাম।

সঃ-শেষের কবিতা শেষ অক্ষর বলা হয়নি।
অঃ-আর হবেনা কভু বলা।

সঃ-আমার স্টেশন শেষ স্টেশন,
কতো মানুষ ছিলো ট্রেনে,
সব নেমে গেলো একএক করে,
শুধু একলা এখন আমি ট্রেনে।
অঃ-ভালো থেকো।

সঃ-ভালো থেকো,শেষ অক্ষর হয়নি বলা।
অঃ-হেই বন্ধু বিদায়।

সঃ-হেই বন্ধু বিদায়,
কোন দিন কর্মময় জীবনে
হয় যদি দেখা, নাহি বলিবে কথা,
অন্তরের চোখ দিয়ে দেখো তবে,
আমার অন্তিমকাল চলে এসেছে।
হে বন্ধু বিদায়।।

আপনার মতামত দিন

Posted ১:৫৮ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০৮ জুলাই ২০২১

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

ড. সৈয়দ রনো   উপদেষ্টা সম্পাদক   
শাহ্ বোরহান মেহেদী, সম্পাদক ও প্রকাশক
,
ঢাক অফিস :

২২, ইন্দারা রোড (তৃতীয় তলা), ফার্মগেট, তেজগাও, ঢাকা-১২১৫।

নরসিংদী অফিস : পাইকসা মেহেদী ভিলা, ঘোড়াশাল, নরসিংদী। ফোনঃ +8801865610720

ই-মেইল: news@doinikpublicbangla.com